খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ল

22

ডেস্ক নিউজ: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করে আরও ছয় মাসের জন্য মুক্তির মেয়াদ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষাসেবা বিভাগ। এ নিয়ে পঞ্চমবারের মতো সাজা স্থগিতের মেয়াদ বাড়ল।

বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, বর্ধিত মেয়াদে খালেদা জিয়া ঢাকার নিজ বাসায় থেকে চিকিৎসা নেবেন এবং দেশের বাইরে যেতে পারবেন না- এ দুটি শর্তে খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।’

সম্প্রতি আগে খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানো এবং চিকিৎসায় বিদেশে নেওয়ার জন্য তার ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেন। পরে এ আবেদনের বিষয়ে মতামত নিতে তা আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে পূর্বের শর্ত বহাল রেখে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ আরও ছয়মাস বাড়ানো হয়। গত ১৬ মার্চ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

আগামী ২৪ মার্চ খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে। এই অবস্থায় গত ১ মার্চ বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তির মেয়াদ বাড়ানো এবং চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে তার ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেন।

২০২০ সালের ২৫ মার্চ সরকারের নির্বাহী আদেশে প্রথমে ছয় মাসের জন্য শর্ত সাপেক্ষে মুক্তি পান খালেদা জিয়া। পরে গত সেপ্টেম্বরে তার মুক্তির মেয়াদ আরও ছয় মাসের জন্য বাড়ানো হয়। মুক্তিতে থাকার সময় খালেদা জিয়া নিজের বাসায় থেকে চিকিৎসা নেবেন; এ সময় তিনি দেশের বাইরে যেতে পারবেন না বলে শর্ত দেওয়া হয়।