কে হচ্ছেন নাসিকের আগামী দিনের মেয়র?

89


আবদুর রহিমঃ

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নিবার্চনে রাত পোহালেই ভোট। এবারের নিবার্চনে একাধিক প্রার্থী থাকলেও মূলত ভোটের লড়াই হবে আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভি এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা এড.তৈমুর আলম খন্দকারের মধ্যে। ভোটের মাঠে দুই নেতা নিজ নিজ প্রার্থীদের নিয়ে তৎপর ছিল। নিবার্চনে জয়ের ব্যাপারেও তাঁরা শতভাগ আশাবাদী। নগরবাসী আগামী পাঁচ বছরের জন্য কাকে মেয়র হিসেবে বেছে নিবেন এ নিয়েও চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। দিন শেষে বুঝা যাবে কে হচ্ছেন আগামী দিনের মেয়র।

এদিকে, নিবার্চন সুষ্ঠু করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আশ্বাস দেয়া হয়েছে। বিশৃঙ্খলা করলে কঠোর হস্তে দমনম করা হবে বলেও কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন। 

সূত্রমতে, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নিবার্চন আসলেই নিবার্চনী মাঠ ঘোলা হতে থাকে। নিবার্চনী ইস্যু নিয়ে জল কম ঘোলা কম হয়নি। এবারের নিবার্চনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সেলিনা হায়াত আইভি ও স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকার একে অপরের বির“দ্ধে নানা অভিযোগ তুলে ধরে গণমাধ্যমের নিউজের খোরাক জুগিয়েছে। নিবার্চন ইস্যুতে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী সাংসদ শামীম ওসমানকে বার বার আলোচনায় নিয়ে আসা হয়েছে। এই সাংসদকে নিয়ে নিবার্চনী মাঠ সরগরম ছিল। মাঠ চষে বেড়িয়েছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। তৈমুর আলম খন্দকারকে নিয়ে খেলা কম হয়নি। নিবার্চন করতে নেমে দলের কেন্দ্রীয় এবং ’স্থানীয় সব পদ হারিয়েছেন তিনি। তবুও নিবার্চনী মাঠ ত্যাগ করেনি বিএনপির এই নেতা।

নিবার্চনে জয়ের ব্যাপারে মেয়র প্রার্থী আইভী বলেছেন,এই নৌকা হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর, একাত্তরের, শেখ হাসিনার ও আইভীর। এই নৌকার বিজয় হবে। আমি নারায়ণগঞ্জের ২৭টি ওয়ার্ডে ঘুরে ঘুরে দেখেছি মাটি ও মানুষ নৌকার পক্ষে রায় দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে আছে।’ সুতরাং জয় আমারই হবে। আমি সন্ত্রাস, দুর্নীতির বির“দ্ধে কথা বলি। এই কথা চলমান থাকবে। যেকোনও সময় কিছু ঘটে যেতে পারে। আমার বাবা আলী আহমেদ চুনকা সারা জীবন আপনাদের সেবা করে গেছেন। আমি আমার বাবার পথ অনুসরণ করে আপনাদের সেবা করে যেতে চাই।

অন্যদিকে, স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকার বলেছেন,নির্বাচনের মাঠে শেষ পর্যন্ত থাকবো। হাতি প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। মানুষ পানির জন্য তিন শতাংশ কর দিয়েও সুপেয় পানি পাচ্ছে না। ১৮ বছরের পুঞ্জীভূত ক্ষোভের বহির্প্রকাশ ঘটাতে চায় নারায়ণগঞ্জবাসী।’