টাইব্রেকারে স্বাধীনতাকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন মোহামেডান

90

ফেডারেশন কাপে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড বনাম স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘের ম্যাচটি আজব এক ঘটনার সাক্ষী হলো। ড্র হওয়া ম্যাচ শেষে দুদল মাঠ ছেড়ে বাসেও পর্যন্ত উঠে যায়, বন্ধ করা হয় মাঠের ফ্লাড লাইট।

তবে এরপরও দুদলকে ফের মাঠে ডেকে আনা হয়। গ্রুপ চ্যাম্পিয়নের তকমা দিতে হয় টাইব্রেকার। আর এতে জিতে ‘এ’ গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে পা রাখে মোহামেডান।

মোহামেডান ও স্বাধীনতার সঙ্গে একই গ্রুপে ছিল বসুন্ধরা কিংস। কিন্তু খেলোয়াড়দের সুরক্ষার কথা ভেবে ঝুঁকিপূর্ণ টার্ফে না খেলার সিদ্ধান্তের কথা আনুষ্ঠানিকভাবে বাফুফেকে জানিয়ে দেয় বসুন্ধরা। তাই গ্রুপে দল দুটি।  

এর আগে সোমবার কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে নির্ধারিত সময়ে ম্যাচটি ছিল ১-১ গোলে ড্র। ৩৯ মিনিটে মালির স্ট্রাইকার ও দলের অধিনায়ক সুলেমান দিয়াবাতের গোলে এগিয়ে যায় মোহামেডান। সাহেদ মিয়ার কর্নারে বক্সের মধ্যে লাফিয়ে উঠে হেডে গোলটি করেন দিয়াবাতে।  

এক মিনিট পরেই স্বাধীনতাকে ম্যাচে ফেরায় বসনিয়ার স্ট্রাইকার নেদো তুর্কোভিচ। রাসেল আহমেদের রক্ষণচেরা থ্রু থেকে ডান পায়ের প্লেসিংয়ে গোলটি করেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত টাইব্রেকারে স্বাধীনতাকে ৪-৩ গোলে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে পরের রাউন্ডে পা রাখে মোহামেডান। স্বাধীনতা রানার্সআপ।

দিনের অপর ম্যাচে বসুন্ধরার মতো প্রায় একই কারণে গ্রুপ ‘বি’ থেকে উত্তর বারিধারা টুর্নামেন্ট বর্জন করে খেলতে না আসায় শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকে ৩-০ গোলে জয়ী ঘোষণা করা হয়।