যুবদলকে নষ্ট করার চেস্টা করে যাচ্ছে কিছু মেয়র ও এমপি প্রার্থী

130

শহর প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের সভাপতি ও নাসিক ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ বলেছেন, ২০০৮-২০১৯ সাল পর্যন্ত সকল আন্দোলন সংগ্রামে মহানগর যুবদলের নেতা-কর্মীদের কার্যক্রম ছিল। ইনশাল্লাহ আগামী মাস থেকে সেন্ট্রালের যে কোন আন্দোলন সংগ্রামে মহানগর যুবদল রাজপথে থাকবে। দলের কোন নেতা কর্মীর বিরুদ্ধে বিষোগদার ও বদনাম করবেন না, আমরা সবাই একটি দল করি। লোভের কারণে অনেকে দিকে গেছে, অন্য কিছু করতাছে। এই লোভটা সাময়িক, যারা লোভের কারণে এসব করছে তাদের কোন দোষারোপ করছি না। তাদের লোভী করে তুলছে তারা হলে যুবদলের বাহিরে বিএনপি কিছু নেতা।

মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর বিকাল সাড়ে ৩টায় মজলুম মিলনায়তনে জাতীয়তবাদী যুবদলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের সভাপতি’র বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

খোরশেদ বলেন, করোন কালীন সময় ও আগে পরে আপনাদের সহযোগিতায় রাজনীতি ও মানবসেবা কারণে সুনাম হওয়ায়, অনেকে মধ্যে কষ্টের কারণে হয়ে উঠেছে। অনেকে মনে করছে, আমি এই নির্বাচন করমু, আমি ওই নির্বাচন করমু। এই চিন্তার কারণে আমাদের দলের কিছু নেতাদের উপর নকল ভালবাসা দিয়ে সরিয়ে রেখেছে। সারা বাংলাদেশের মধ্যে অন্যতম সংগঠন হলো মহানগর যুবদল। এই যুবদলকে নষ্ট করার চেস্টা করে যাচ্ছে কিছু মেয়র ও এমপি প্রার্থী নেতারা। আল্লাহ সকল ক্ষমতা ও সম্মানের মালিক। তিনি যাকে উঠায়, তাকে সেই বুঝে ধরে রাখেন। যারা নকল ভালবাসায় সরে আছে তারা আমাদের বিরুদ্ধে কথা বার্তা বলবে, সেগুলো শুনে আল্লাহর কাছে বিচার দিয়ে রাখবেন।

পদ পদবী নিয়ে তূণমূল উদ্দেশ্যে খোরশেদ বলেন, ১৩/১৪ বছর যাবৎ যুবদলের সাথে জড়িত আছি। কে কোথায় কিভাবে যুবদলের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছে। আপনারা কারা কোন পদে যাবেন, আমাদের নেতৃবৃন্দ সিদ্ধান্ত নিবেন। আপনাদের নিয়ে আগামী সকল আন্দোলন গড়ে তুলবো, ইনশাল্লাহ।

এ সময় উপস্থিত ও বক্তব্য রাখেন মহানগর যুবদলের সহ সভাপতি রানা মজিব, দুলাল হোসেন, রিটন দে, দপ্তর সম্পাদক শওকত খন্দকার, সাংগঠনিক সম্পাদ রশিদুর রহমান রশো, প্রচার সম্পাদক রাসেল আহমেদ মনির, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুলহাস, আলামিন খান, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল প্রধান, সাংগঠনিক সম্পাদক জুয়েল রানা, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন, মো. বাহার, মো. নূর আলম, ইব্রাহিম, বন্দর থানা যুবদলের সভাপতি আমির হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী নওশাদ, সহ সভাপতি পারভেজ খান, নজরুল ইসলাম, সদর থানা যুবদল নেতা রানা মুন্সি, এম এম সাজাদ সহ প্রমুখ।

খোরশেদের উদ্দেশ্যে তৃণমূল নেতারা বলেন, বড় গাছের উপর দিয়ে ঝড় যাবে, এটা স্বাভাবিক। আপনি ভাঙ্গবেন না। কর্মীরা পাশে আছি, থাকবো। সুযোগ সন্ধানের পায়তারা পড়েছে তারা। ভুল বুঝে ফের দলের পতাকা তলে আসবে। নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের দেশের সকল যুবদলের কাছে মডেল হয়ে আছে। সভাপতি খোরশেদ শুধু বিএনপি যুবদলের হিরো না, তিনি করোনা হিরো, তিনি বিদেশেও হিরো হয়ে আছেন। কর্মীদের মূল্যায়িত করে তাদের যথাস্থানে দিয়েছেন খোরশেদ সাহেব। কিন্তু অনেক পদ পেয়ে নিজের ক্ষমতা দেখানো জন্য দলের জীবনে দেখি নাই, তারা এখন ওয়ার্ড থানা বনে যাচ্ছে।