আড়াইহাজারে আ’লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ-স্কুলছাত্র নিহত

90

আমাদের নারায়ণগঞ্জ: আড়াইহাজার উপজেলায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে  আইয়ুব আলী (১৭) নামে এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে।

নিহত স্কুলছাত্র আইয়ুব আলী কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ইজারকান্দি এলাকার মৃত জয়নাল মিয়ার ছেলে। সে স্থানীয় একটি স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র ছিল। 

এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ১০-১৫ জন। বুধবার (২৭ মে) সন্ধ্যায় কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ইজারকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম গ্রুপ ও সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য আব্দুল হক গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। এ সময় দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে স্কুলছাত্র আইয়ুব আলী গুলিবিদ্ধ হয়। আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পর সে মারা যায়। এছাড়াও দেশি অস্ত্রের আঘাতে আহত হয়েছে আরও অন্তত ১০-১৫ জন। তাদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আব্দুল হক ও কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে তাদের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) জায়েদুল আলম বলেন, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আব্দুল হকের সঙ্গে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের দীর্ঘদিনের বিরোধ চলে আসছিল। বুধবার বিকেলে আম খাওয়া নিয়ে প্রথমে বাচ্চাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। পরে সেটা আওয়ামী লীগের ওই দুই গ্রুপের মধ্যে জড়িয়ে যায়। উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে স্কুলছাত্র আইয়ুব আলী মারা যায়।

তিনি আরো বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ শটগানের ২০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি করে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।