বিমান থেকে নারায়ণগঞ্জের সেলিম গ্রেফতার

175

আমাদের নারায়ণগঞ্জঃ অনলাইনে ক্যাসিনো পরিচালনার অভিযোগে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান থেকে  সেলিম প্রধান নামে এক বিমানযাত্রীকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি ইউনিট। থাই এয়ারওয়েজের ব্যাংককগামী একটি ফ্লাইট থেকে সেলিম প্রধান নামের ওই যাত্রীকে আটক করা হয়। তার বাড়ি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ ভুলতা প্রধান বাড়ি বলে জানা গেছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে দেশে এবং দেশের বাইরে বসে ক্যাসিনো পরিচালনা করে আসছে।

সোমবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। ফ্লাইটটি ঢাকা থেকে দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটে ব্যাংককের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার কথা ছিল। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একটি ইউনিট ফ্লাইটে হাজির হলে ফ্লাইট ছাড়তে ৩টা বেজে যায়।

বিমান সূত্র জানায়, থাই এয়ারওয়েজের টিজি-৩২২ নম্বর ফ্লাইটটি ছাড়ার আগ মুহূর্তে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একদল সদস্য বিজনেস ক্লাসের ওই যাত্রীকে নামিয়ে নিয়ে যায়। আটক সেলিম প্রধানের কোনো রাজনৈতিক পরিচয় আছে কি না এ বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন্স) কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সরোয়ার আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আটক ব্যক্তি অনলাইন ক্যাসিনো/জুয়ার সঙ্গে জড়িত। তিনি অনলাইনে ক্যাসিনোর অর্জিত আয় বিদেশে পাচার করে আসছিলেন। জিজ্ঞাসাদের ভিত্তিতে পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবে র‌্যাব।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত সেলিম প্রধানের এক সময় হাওয়া ভবনে নিয়মিত যাতায়াত ছিল। বিগত চারদলীয় জোট সরকারের সময়ে তারেক রহমান ও তার বন্ধু গিয়াস আল মামুনের সাথে ছিল গভীর সখ্যতা। হাওয়া ভবনের প্রভাবকে কাজে লাগিয়ে তৎকালিন সময়ে তিনি পুলিশী নিরাপত্তা বেস্টুনিতে চলাফেরা করতেন। তারেক রহমানের বন্ধু গিয়াস আল মামুন যে বিএমডব্লিউ গাড়ি নিয়ে চলতে সেই গাড়িটিও সেলিম প্রধানের উপহার। ক্ষমতার পট পরিবর্তণের পর আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতা গ্রহনের পর সেলিম প্রধান থাইল্যান্ডে পাড়ি জামান। ওখানে থেকেই ক্ষমতাসীন দলের বেশ কিছু নেতার সাথে যোগাযোগ করে দেশে ফিরে এসেই ক্যাসিনো সম্রাট বনে যায়।

সূত্র আরো জানায়, তৎকালিন সময়ে গিয়াস আল মামুনের ওয়ান গ্রুপের ২০% শেয়ার ছিল তার। এছাড়াও মামুনের শ্যালক সোহেলের সাথেও ছিল তার যৌথ ব্যবসা। বর্তমানে রূপগঞ্জের ভুলতায় জেবি সিকিউরিটি প্রিন্ট নামে একটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এখান থেকে বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী  ব্যাংকের চেক বই প্রিন্ট করা হয়। এছাড়াও জাতীয় ক্রিড়া পরিষদ ভবনের ১৯ ও ২১ তলায় রয়েছে তার নিজস্ব অফিস। দেশের বাইরে থাইল্যান্ডের পাতায়ায় রয়েছে একাধিক রিসোর্ট,হোটেল বার।

গ্রেফতারকৃত সেলিম প্রধান রূপগঞ্জ প্রধান বাড়ির ছেলে হলেও রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় তার বেড়ে ওঠা। এক সময় জাপান থাকলে চারদলীয় জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর পরই দেশে ফিরে এসে হাওয়া ভবনের সাথে সখ্যতা গড়ে তুলেন। ওই সময় থেকেই সেলিম প্রধান আলীশান জীবন যাপন করতেন।

SHARE