চাঁদাবাজমুক্ত শাসন ব্যবস্থা করতে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে-ডিআইজি হাবিব

55

আমাদের নারায়ণগঞ্জ ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান বলেছেন, পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ নারায়ণগঞ্জে যোগদানের পর এ জেলায় শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে। ট্রাফিক জ্যামের কারণে দশ মিনিটের রাস্তা আধ ঘন্টা লাগতো, ফুটপাত দখল করে রাখার একটা প্রবণতা ছিল, ভূমিদস্যুতার প্রবণতা ছিল। এ সমস্ত কিছুর বিরুদ্ধে, অন্যায়ের বিরুদ্ধে বর্তমান পুলিশ সুপার রুখে দাড়িয়েছেন। সেটা দলমত নির্বিশেষে সাধারণ মানুষকে যাতে স্বস্তিতে, শান্তিতে রাখা যায়। চাঁদাবাজমুক্ত শাসন ব্যবস্থা করতে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে।

রোববার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ রাইফেল ক্লাব প্রাঙ্গনে ই-ট্রাফিকিং কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন বলেন, আমরা কারো বিরুদ্ধে কেউ উস্কানিমূলক কথা বলবো না। নিজের কাজ করে দেখোবো যে আমি কারো পকেটের বা ব্যক্তির লোক নই। আমি আমার কাজ দিয়ে নিজেকে প্রমাণ করতে চাই।

তিনি বলেন,আমার আর পুলিশ সুপারের ব্যক্তিগত সম্পর্ক বহু পুরনো। আমরা বিশ্বাস করি, আমাদের নিজেদের গ্রহণযোগ্যতা ও ভালোবাসা দিয়ে এখানের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের ভুল পথ কিংবা অন্য ধরণের কোন পথ থাকে আমরা সেখান থেকে তাদের নিয়ে আসতে পারবো। আমার সে দৃঢ় বিশ্বাস আছে। আমরা একসাথে বসে আলোচনার মাধ্যমে সবকিছুর সমাধান করবো।

আমরা সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিতে চাই মন্তব্য করে এসপি হারুন অপর রশিদ বলেন,যে সকল সন্ত্রাসী ও ভূমিদস্যুদের ধরা হচ্ছে তারা হয়তো কারও ভাই বোন হতে পারে কিংবা কারও লোক হতে পারে। এতে কারও মন খারাপ হতে পারে কিন্তু আমাদের অভিযান চলবেই। আমরা সেবার মানসিকতা নিয়েই কাজ করছি। আমরা কোন গ্রুপিং কিংবা কোন দলবাজী করছি না। 

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান, ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি আসাদুজ্জামান, নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মহানগর সভাপতি আনোয়ার হোসেন, নারায়ণগঞ্জ চেম্বারের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক লিমিটেডের সি ই ও ব্যবস্থাপক পরিচালক মো. শওকত জামাল।

SHARE