রফিক ভেন্ডারের বিরুদ্ধে বস্তিতে আগুন দেয়ার অভিযোগ

35

আমাদের নারায়ণগঞ্জ ডটকমঃ নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একটি বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ঝুটের গোডাউন সহ অর্ধশতাধীক বস্তিঘর ভস্মীভূত হয়েছে। গত শুক্রবার ভোরে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের পাশে রেজিষ্ট্রি অফিস সংলগ্ন বস্তিতে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের ০৭টি ইউনিট চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও অর্ধশতাধিক স্থাপনা পুড়ে যায়। যদিও এই ঘটনায় কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে এই অগ্নিকান্ডকে পরিকল্পিত অগ্নিসংযোগ বলে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভুগিরা। শুক্রবার রাতে ফতুল্লা মডেল থানায় এ অভিযোগ দায়ের করা হয়। ক্ষতিগ্রস্থদের পক্ষ থেকে মুনছুর নামে এক যুবক এ অভিযোগ দায়ের করেন।বস্তির পূর্ব পার্শ্বের জমির মালিক রফিক ভেন্ডার, তার সহযোগি জনি এবং ম্যানেজার আলাউদ্দিনকে অভিযুক্ত করা হয়। প্রধান অভিযুক্ত রফিক ভেন্ডার বেশ কয়েকবার বস্তি আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ছিলো বলে অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে।

বাদী তার অভিযোগে বলেন, আমিসহ আরো প্রায় ৫০টি পরিবার আমাদের উপরোক্ত ঠিকানায় সরকারি জমিতে বসবাস করে ঝুটের গোডাউন করে ক্ষুদ্র পরিসরে ব্যবসা করে আসছি। অভিযুক্ত রফিক ভেন্ডার আমাদের বস্তির পূর্ব পাশের জমির মালিক। সে দীর্ঘদিন যাবত আমাদের বস্তিবাসীকে বস্তি ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করছিল। যেন আমরা চলে গেলে সে উক্ত জায়গা ভোগ-দখল করতে পারে। কিন্তু সরকার কর্তৃক উচ্ছেদের ঘোষণা বা নোটিশ না আসায় আমরা বস্তি হতে ছেড়ে যাইনি। এতে রফিক ভেন্ডার ও তার সহযোগি জনি এবং ম্যানেজার আলাউদ্দিন আমাদের প্রতি ক্ষিপ্ত হয়। গত ৩১ জুলাই দুপুরে রফিক ভেন্ডার ও জনির সাথে যোগসাজসে আলাউদ্দিন অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জন লোক নিয়ে আমাদের বস্তিতে এসে হুমকি দেয় যে, আমরা যদি স্বেচ্ছায় বস্তি ছাড়ে না যাই, তাহলে আমাদেরকে বসতবাড়ি সহ আগুনে জ্বালিয়ে দিবে। এমতাবস্থায় আজ শুক্রবার (২ আগস্ট) ভোর সোয়া ৩টার দিকে আমরা ঘুমে থাকাবস্থায় টের পাই যে, আমাদের বস্তিতে আগুন লেগেছে। তাৎক্ষনিক আমরা বের হয়ে দেখি যে, বস্তির দুই দিকে পৃথক ভাবে আগুন জ্বলছে। নিমিশেই বস্তির ঘর বাড়ি ও বিভিন্ন ঝুটের গোডাউন আগুনে ভস্মীভূত হয়।

তিনি বলেন, কোন দূর্ঘটনা বশতঃ আগুন লাগলে এর উৎপত্তিস্থল যেকোন এক পাশ থেকে হতো। কিন্তু আমরা দেখেছি বস্তির দু পাশে দু দিক দিয়ে আগুন লেগেছে। এতে প্রতিয়মান হয়, কেউ ইচ্ছাকৃত ভাবে অগ্নি সংযোগ করেছে। আমাদের সন্দেহ রফিক ভেন্ডারের লোকেরাই পরিকল্পিক ভাবে এই অগ্নিকান্ড ঘটিয়েছে। আমরা এর বিচার চাই। এদিকে আগুনে পোড়া বস্তিবাসীদের তৎক্ষণিক সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক। বস্তিবাসীদের মাঝে ২০ কেজি করে চাল বিতরণ করেন তিনি। প্রসঙ্গত, ইতিপূর্বে আরো কয়েকবার এই বস্তিতে অগ্নিকান্ড ঘটেছিল। যা বস্তি বাসির কাছে রহস্যই থেকে গেছে।

SHARE